প্রেস ইনস্টিটিউট বাংলাদেশ (পিআইবি) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ১৭ ডিসেম্বর ২০১৮

ভর্তি সংক্রান্ত তথ্যাদি (মাস্টার্স প্রোগ্রাম)

মাস্টার্স প্রোগ্রাম (১মপর্ব): গণমাধ্যম ও সাংবাদিকতা 
 
প্রেস ইনস্টিটিউট বাংলাদেশ (পিআইবি) গণমাধ্যম ও সাংবাদিকতা বিষয়ে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীন দুই বছর মেয়াদি মাস্টার্স প্রোগ্রামে (১মপর্ব) ভর্তি প্রক্রিয়া শুরু করেছে। ভর্তির ক্ষেত্রে গণমাধ্যম ও সাংবাদিকতা পেশা-সংশ্লিষ্টদের অগ্রাধিকার প্রদান করা হবে।   
 
আবেদনের যোগ্যতা
 
গণমাধ্যম ও সাংবাদিকতা বিষয়ে মাস্টার্স কোর্সে আবেদনের ন্যূনতম যোগ্যতা হিসেবে স্নাতক(সম্মান/পাশ) অথবা সমমানের ডিগ্রিধারী আবেদন করতে পারবেন। তবে কোন পরীক্ষাতেই সিজিপিএ-৫ এর মধ্যে ২.৫০ / ৪ এর মধ্যে ২.২৫ এর নিচে অথবা তৃতীয় শ্রেণি গ্রহণযোগ্য নয়। 
 
আবেদন প্রক্রিয়া
 
পিআইবি’র ওয়েবসাইট (www.pib.gov.bd) থেকে আবেদনপত্র ডাউনলোড অথবা পিআইবি থেকে সরাসরি সংগ্রহ করা যাবে। ডাউনলোডকৃত আবেদন ফরম লিগ্যাল পেজ-এ প্রিন্ট দিয়ে পূরণ করতে হবে। পূরণকৃত আবেদনপত্রের সাথে সকল শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদপত্র ও নম্বরপত্রের সত্যায়িত কপি, দুই (০২) কপি পাসপোর্ট সাইজের সদ্য তোলা সত্যায়িত রঙিন ছবি, জাতীয় পরিচয়পত্রের কপি ও প্রাথমিক আবেদন ফি বাবদ ১০০০/- (এক হাজার টাকা মাত্র) ‘প্রেস ইনস্টিটিউট বাংলাদেশ (পিআইবি), ৩ সার্কিট হাউস রোড, ঢাকা-১০০০’ বরাবর নির্ধারিত সময়ের মধ্যে জমা দিতে হবে। অসম্পূর্ণ বা ভুল তথ্য প্রদান করলে আবেদনপত্র বাতিল বলে গণ্য হবে। 
 
ভর্তি পরীক্ষা ও নম্বর বণ্টন
 
বাংলা, ইংরেজি, গণমাধ্যম ও সাংবাদিকতা, সাধারণ জ্ঞান বিষয়ে ৭০ নম্বরের লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। লিখিত পরীক্ষার সময় ১ ঘণ্টা ৩০ মিনিট। লিখিত পরীক্ষার নম্বর বণ্টন:
 
বিষয় নম্বর
বাংলা ১৫
ইংরেজি ১৫
গণমাধ্যম ও সাংবাদিকতা ২৫
সাধারণ জ্ঞান ১৫
মোট = ৭০
 
 
লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীরা সকল মূল সনদপত্রসহ মৌখিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করবে।
 
ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল
 
ক. ভর্তি পরীক্ষার চূড়ান্ত ফলাফল:
 
বিষয় নম্বর
লিখিত পরীক্ষা ৭০
মৌখিক পরীক্ষা ২০
গণমাধ্যম প্রতিষ্ঠানে কাজের অভিজ্ঞতা ১০
মোট = ১০০
 
উল্লিখিত নম্বরের ভিত্তিতে চূড়ান্ত মেধা তালিকা প্রণয়ন করা হবে।
 
খ. দুই বা ততোধিক আবেদনকারীর মেধাস্কোর সমান হলে গণমাধ্যম ও সাংবাদিকতা বিষয়ে পেশাগত অভিজ্ঞতার নম্বরের ভিত্তিতে মেধাস্কোর দেয়া হবে। এরপরেও মেধাস্কোর সমান হলে আবেদনকারীর স্নাতক পর্যায়ে পরীক্ষার প্রাপ্ত নম্বর অনুসারে মেধাক্রম নির্ধারণ করা হবে।  
 
গ. ভর্তির ফলাফলের সাথে প্রথম ও দ্বিতীয় অপেক্ষমাণ তালিকা প্রকাশ করা হবে। 
 
 
ভর্তি প্রক্রিয়া
 
পিআইবি অফিস থেকে আবেদনপত্র সংগ্রহ করতে হবে অথবা পিআইবি’র ওয়েবসাইট থেকে আবেদনপত্র ডাউনলোড করে পূরণ করতে হবে। পূরণকৃত আবেদনপত্র ১৭/১২/২০১৮ থেকে ২৬/১২/২০১৮ তারিখ পর্যন্ত ‘প্রেস ইনস্টিটিউট বাংলাদেশ, ৩ সার্কিট হাউস রোড, ঢাকা-১০০০’ ঠিকানায় জমা দিতে হবে।
 
পূরণকৃত আবেদনপত্রের সাথে জমা দিতে হবে:
ক. সকল সনদপত্রের (এসএসসি/সমমান, এইচএসসি/সমমান,  স্নাতক সম্মান/পাশ বা সমমান, স্নাতকোত্তর সম্মান/পাশ বা সমমান ইত্যাদি) সত্যায়িত কপি
খ. সকল নম্বরপত্রের (এসএসসি/সমমান, এইচএসসি/সমমান, স্নাতক সম্মান/পাশ বা সমমান, স্নাতকোত্তর সম্মান/পাশ বা সমমান ইত্যাদি) সত্যায়িত কপি 
গ. জাতীয় পরিচয়পত্রের কপি
ঘ. পাসপোর্ট সাইজের সদ্য তোলা দুই (০২) কপি সত্যায়িত রঙিন ছবি 
ঙ. আবেদনপত্র জমা দেওয়ার সময় ১০০০/- (এক হাজার টাকা মাত্র) জমার রশিদ সংযুক্ত করতে হবে।
 
প্রয়োজনীয় তথ্যাদি:
 
আসন সংখ্যা (১মপর্ব) : ৫০ (পঞ্চাশ)
আবেদনপত্র সংগ্রহ ও জমাদানের তারিখ : ১৭/১২/২০১৮ থেকে ২৬/১২/২০১৮
ভর্তি পরীক্ষা : ৪ জানুয়ারি, ২০১৯ (শুক্রবার), সকাল ১০টা থেকে ১১:৩০ মিনিট
সম্ভাব্য ক্লাস শুরুর তারিখ : ২৬ জানুয়ারি, ২০১৯
ক্লাসের সময়সূচি : শুক্রবার: সকাল ৯টা ৩০ মিনিট থেকে (বিরতিসহ) বিকাল ৫টা
শনিবার: সকাল ৯টা ৩০ মিনিট থেকে বিকাল ৫টা
রবিবার: সকাল ৯টা ৩০ মিনিট থেকে দুপুর ১২টা ৩০ মিনিট
ভর্তি ফি (১মপর্ব) সর্বমোট ৩১,০০০/-  (একত্রিশ হাজার টাকা মাত্র) : ভর্তির আবেদনপত্র ফি: ১০০০/- (এক হাজার টাকা মাত্র) 
ভর্তি, রেজিস্ট্রেশন ও অন্যান্য ফি বাবদ: ১৮,০০০/- (আঠারো হাজার টাকা মাত্র)
টিউশন ফি: ১২,০০০/- (বারো হাজার টাকা মাত্র) (মাসিক ১০০০/-)
 
বি.দ্র. ভর্তির সময় আবেদনপত্রের ফি, এক মাসের বেতনসহ এককালীন ২০,০০০/- (বিশ হাজার টাকা মাত্র) জমা দিতে হবে। 

Share with :

Facebook Facebook